ভাত খাওয়ার মধ্যে পানি পান কি ঠিক 

খাবার সময়টা একটু আরামে কাটানো উচিত তাইনা? সেখানেও সমস্যা। ভাত খাওয়ার সময় পানি পান করাটা অনুচিত, এই কথা হরহামেশাই শোনা যায়। আবার কেউ কেউ বলেন এতে কোনো ক্ষতিই নেই। তাহলে কোন তথ্যটি সঠিক এ নিয়ে চিন্তায় পড়ে যান অনেকেই।  

সচরাচর বিশেষজ্ঞদের অভিমত, ভারি কোনো খাবার খাওয়ার অন্তত ২০-২৫ মিনিট পর পানি পান করা স্বাস্থ্যের জন্যে ভালো। এতে হজমের সুবিধা হয়। বিশেষত গ্যাস্ট্রিক আর অ্যাসিডিটির সমস্যায় ভুগছেন যারা, তাদের জন্যে এটি খুবই উপকার। 

কিন্তু কেন? ভাত খাওয়ার পরপর বা মাঝামাঝি সময়ে পানি পান বিজ্ঞানসম্মত নয়। খাবার গ্রহণের পর সেটি হজম করার জন্যেই পাকস্থলী থেকে গ্যাস্ট্রিক রস নিঃসৃত হয়। খাওয়ার মধ্যে বা পরপর পানি পান করে ফেললে এই রস ঠিকঠাক হজমের কাজ সম্পূর্ণ করতে পারেনা। এতে দেহে পুষ্টির ঘাটতি হতে পারে।

খাওয়ার মধ্যে বা পরপর পানি পান করে ফেললে এই রস ঠিকঠাক হজমের কাজ সম্পূর্ণ করতে পারেনা

সচরাচর ভাতের সাথে আমিষ খাওয়া হয়। খাওয়ার পরপর পানি খেলে আমিষের সাথে থাকা ফ্যাট সল্যুশন শরীর থেকে বের হয়ে যায় পানির মাধ্যমে। এতে দীর্ঘমেয়াদে ভিটামিন ও খনিজ পদার্থের ঘাটতি দেখা দিতে পারে। এছাড়াও খাবার খাওয়ার পর প্যানক্রিজ থেকে উৎপন্ন এমাইলেজ, প্রোটিয়েজ, লাইটেজ ও ইত্যাদি এনজাইম হজমে সাহায্য করে। ভাত খাওয়ার পরপর পানি খেয়ে নিলে এই এনজাইমগুলো ঠিকভাবে কাজ করতে পারেনা।

একথা মানতেই হবে, ভাত খাওয়ার সময় গলায় আটকে গেলে বা হেঁচকি উঠলে পানি খেতেই হবে। তবে তা খুবই অল্প। সচরাচর ছোটখাটো সমস্যা না হলে খাবার অনেকক্ষণ পরে পানি পান করুন। তাতে আপনার স্বাস্থ্য ভালো থাকবে। 

About admin